ভোলা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের জেএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে বাড়তি ফি আদায়ের অভিযোগ

আল-আমিন এম তাওহীদ,

ভোলানিউজ.কম,

১০অক্টোবর-২০১৭ইং,

ভোলা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের জেএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শিক্ষার্থী এবং অভিবাবকরা জানিয়েছেন, জনপ্রতি পরীক্ষার ফি ১ শত এবং কেন্দ্র ফি ১ শত ৫০ মিলে সর্বমোট ২ শত ৫০ টাকা নেয়ার কথা থাকলেও বিদ্যালয়ের ২ টি শিফটের ২ শত ১৭ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৩ শত টাকা করে ফি নেয়া হয়েছে।

এ ব্যপারে শ্রেণি শিক্ষিকা সুমিতা রাণী দে’র সঙ্গে আলাপ করলে তিনি জানান, প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে তিনি বাড়তি ফি নিয়েছেন। প্রধান শিক্ষক সুশান্ত কুমার দে জানিয়েছেন, বিদ্যালয়ের অন্যান্য খরচ নির্বাহের জন্য বাড়তি টাকা নিয়েছেন। তবে অভিবাবকরা ফেরত চাইলে তিনি বাড়তি টাকা ফেরত দিয়ে দিবেন।
এদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড বরিশালের পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মোঃ আনোয়ারুল আজিম স্বাক্ষরিত পনি/জেএসসি ২০১৭/১৬৩৩-৩০.০৭.১৭ তারিখের স্মারকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদেরকে জানানো হয়েছে, মহামান্য আদালত ও শিক্ষা বোর্ডের সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা অনুযায়ী কোন ভাবেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্ধারিত ফির বাইরে অতিরিক্ত কোন ফি নিতে পারবেন না। এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কিন্তু এই বিদ্যালয়ের বাড়তি ফি নেওয়ার ব্যপারে ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় শিক্ষার্থী এবং অভিবাবকদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

(আল-এম)