ভোলায় মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার মামলায় আসামীরা এখনো ধরা ছোয়ার বাহিরে।

স্টাফ রিপোর্টার
ভোলানিউজ.কম,
১৭-০৯-২০১৭ইং রবিবার,
ভোলার ধনিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা এবং সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্য মো: আলী হোসেনকে পিটিয়ে আহত করার ৪ দিন পরও পুলিশ আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি। শনিবার দুপুরে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন সাংবাদিক দের কাছে এসব অভিযোগ করেন।
মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন জানান আমি কানাইনগর এলাকার ১০৮শতাংশ জমি ক্রয় শূর্তে মালিক যা আমি উক্ত জমিতে ঘর করিয়া দীর্ঘদীন যাবত বসবাস করিতেছি।গত ১১ তারিখ সোমবার বিকেলে আমি আমার জমিতে বেড়া দিতে গেলে আমার প্রতিবেশী মো: শেখ ফরিদের নেতৃত্বে মো: মোসলেউদ্দিন,মো: সেলিম,জয়নাল আবেদিন,বাচ্চু সহ ২০-৩০ জন লোক লাঠি এবং লোহার পাইপ দিয়ে আমার উপর হামলা করে।এসময় আমার পুএবধু মোসা: রুনু বেগম আমাকে বাচাতে আসলে তাকেও আঘাত করে এবং তার গলায় থাকা স্বনের চেন এবং কানের দুল নিয়ে যায়।এই ঘটনার পর আমি আহত হয়ে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি হই এবং ভোলা সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি এবং অভিযোগের প্রেক্ষিতে ১২/৯/২০১৭ ইং তারিখে আমি নিজে বাদী হয়ে ৫জনকে আসামী করে ভোলা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করি যাহার নং ১৮/৪৬৯।কিন্তু মামলার করার ৫দিন পরেও কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
আহত আলী হোসেন আরো জানান  বর্তমানে আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং আমার পরিবারের সদস্যদের মামলা তুলে না নিলে দেখে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছে।
এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকতা ভোলা সদর থানার উপপরিদর্শক মো: সানাউল্লাহ জানান, আসামীরা পলাতক রয়েছে এবং পুলিশ আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে।
(আল-এম)