ভোলায় কলেজ শিক্ষকদের আত্তীকরণসহ ৭ দফা দাবীতে স্মারক লিপি প্রদান

বিশেষ প্রতিনিধি,

ভোলানিউজ.কম,

৩০আগস্ট-২০১৭ইং বুধবার,

জাতীয় করনের লক্ষে চুড়ান্ত করা কলেজের গুলোর দ্রুত জিও জারি ও ওই সকল কলেজের শিক্ষকদের ক্যাডারে আত্তীকরণ করাসহ ৭ দফা দাবীতে জাতীয় করণের তালিকা ভূক্ত কলেজ শিক্ষক পরিষদের পক্ষ থেকে ভোলায় জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে ভোলার দৌলতখান আবু আবদুল্লাহ কলেজ,বোরহানউদ্দিন আবদুল জব্বার কলেজ,তজুমদ্দিন ডিগ্রি কলেজ ও মনপুরা ডিগ্রি কলেজের জাতীয় করনের জন্য চুড়ান্ত তালিকা ভূক্ত শিক্ষকরা ভোলা জেলা প্রশাসক মো: সেলিম উদ্দিনের কাছে এ স্মারক লিপি দিয়েছেন।

স্মারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়, কুড়যন্ত্র মূলক ভাবে জাতীয় করণের লক্ষে চুড়ান্ত কলেজের শিক্ষকদের নন-ক্যাডার করে আত্তীকরণ বিধি-২০১৭ চূড়ান্ত হতে যাচ্ছে । প্রস্তাবিত নতুন এ বিধি বাস্তবায়িত হলে বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারের সাথে এ সকল শিক্ষকদের মর্যাদাগত দ্বন্ধসহ দেশের শিক্ষা ক্ষেত্রে বিরাট বৈষম্য দেখা দিবে। মূলত,বর্তমান শিক্ষা বান্ধব সরকারের সফলতাকে বিতর্কিত করার জন্য দেশে ঘাঁপটি মেরে থাকা সরকারবিরোধী চক্র এসকল কলেজের শিক্ষকদের ননক্যডার করার পাঁয়তারা করছে। আত্তীকরণ বিধি ১৯৮১,বিধি-২০০০ এ জাতীয়কৃত কলেজ শিক্ষকদের ক্যাডারে আত্তীকরণের ব্যাপারে সুস্পষ্ট নির্দেশণা ও ব্যাখ্যা থাকার পরেও প্রস্তাবিত বিধি-২০১৭ তে এ সকল শিক্ষকদের ননক্যাডার করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হতে যাচ্ছে যা তাঁদের মর্যাদার দিক থেকে মানবাধিকার লংঘন, প্রাবিত ২০১৭ বিধি চূড়ান্ত করা হলে তা শতশত মামলার মধ্যে পড়ে গিয়ে সমগ্র জাতীয়করণের প্রক্রিয়া হুমকির মধ্যে পড়ে যেতে পারে। এ ছাড়াও শিক্ষকরা ডিড অফ গিফট হওয়া কলেজ সমূহের দ্রুত জিও ও গেজেট জারী করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা, পূর্বের ন্যায় এমপিও ননএমপিও নিয়োগ প্রাপ্ত সকল শিক্ষককে পূর্বে জাতীয়করণের ধারাবাহিকতায় ক্যাডার এর অন্তর্ভূক্ত করণের ব্যবস্থা করা, ১৯৮১ বিধির মত ইফেক্টিভ সার্ভিস ১০০ ভাগ গণনাকরণ, জিও জারীর ৩ মাসের মধ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করে ৬ মাসের মধ্যে এসব শিক্ষকদের চাকরি নিয়মিতকরণের ব্যবস্থাগ্রহণ, বেসরকারি কলেজের নিয়োগ স্থায়ীকরণ হলে সরকারি হওয়ার পর তা বহাল রাখা , নতুন করে স্থায়ী করণ না করা, বুনিয়াদি প্রশিক্ষনকে শুধুমাত্র নায়েমের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে এর বিকেন্দ্রীকরণ এবং প্রশিক্ষণের সুযোগ সকলের জন্য সমান করা, সকল শিক্ষকদের জন্য স্ব-তন্ত্র পে-স্কেল ও ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্সি প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করাসহ এ ৭ দফা দাবী জানান।