তজুমদ্দিনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২৩টি দোকান পুড়ে ছাই ,ক্ষতি ১ কোটি টাকা আহত-৬

আল-আমিন এম তাওহীদ,

ভোলানিউজ.কম,

২০মার্চ-২০১৭ইং সোমবার,

ভোলার তজুমদ্দিনে শিবপুর খাসেরহাট নামক বাজারে বিদ্যুৎতের সর্ট সার্কিট থেকে আগুন অগ্নিকান্ডে অন্তত ২৩ টি দোকান পুরে ছাই।অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনা স্থলে ফায়ার সার্ভিসের ৪ টি ইউনিট ও স্থানীয়রা প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় ঘটনা স্থলে ৬ জন গুরুতর আহত হয়।অগ্নিকান্ডে ২৩টি ব্যবসায়ী দোকানে প্রায় ১কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয় বলে জানা যায়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার শিবপুর খাসেরহাট বাজারে গতকাল রবিবার দিবাগত রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে দিকে একটি স্টেশনারী ও কসমেটিকস এর দোকান থেকে বিদ্যুৎতের সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যে আগুনের শিখা দ্রুত ছড়িয়ে পরে এতে আশ পাশের দোকান গুলোতে অগ্নিকান্ড লেগে পুরে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট, তজুমদ্দিন, বোরহানউদ্দিন ও ভোলা সদর, ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগীতায় প্রায় আড়াই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় আগুন নিভাতে এসে গুরুতর আহত হয়েছে, তজুমদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমিন মহাজন, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ পাটওয়ারী, মনজু, বাচ্চু ও আলমগীরসহ ১০-১৫ জন আহত হয়। পরে তাদেরকে স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনা স্থল পরিদর্শনে আসেন, ভোলা-৩ আসনের সাংসদ নূরুন্নবী চৌধুরী শাওনা এবং তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের প্রত্যেককে নগদ ৫ হাজার টাকা ও ঘর নিমার্ণের জন্য টিন দেওয়ার ঘোষণা দেন। ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থেকে সর্বাত্তক সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

অগ্নিকান্ডে সব কিছু হারিয়ে বিমূর্ষ ব্যবসায়ী ও ক্ষতিগ্রস্তরা। পুড়ে যাওয়া ঘরের মধ্যে নিরবের ষ্টেশনারী দোকান, আরিফ গার্মেন্টস, মনজু কসমেটিকস, রুবেলের কাটা কাপড়ের দোকান, কবির কসমেটিকস, নাজিম ফাষ্টফুড, কবির মিয়ার ফার্মেসি, সাইদুর রহমানের ফার্মেসীসহ মোট ২৫টি দোকান সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন উপজেলা নির্বহি কর্মকর্তা জালাল উদ্দীন, সম্ভুপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও আ’লীগ সম্পাদক ফজলুল হক দেওয়ান, তজুমদ্দিন থানার এস আই আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। পরে দুপুরে লালমোহন সার্কেল এ.এস.পি রফিকুল ইসলাম ও তজুমদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম শাহিন মন্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তজুমদ্দিন ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার মোঃ বেলায়েত হোসেন জানান, আগুনের সুত্রপাত বৈদ্যুতিক সট সার্কিট হয়েছে বলে আমাদের প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছি, ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রস্তুতের কাজ চলছে। উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা জালাল উদ্দীন জানান, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্তক সহযোগীতা করা হবে। তজুমদ্দিন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ অহিদউল্যাহ জসিম জানান, সরকার ও উপজেলা পরিষদের পক্ষ হতে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সকল প্রকার সহযোগীতা করা হবে।

ভোলানিউজ.কম,